Header Ads

Image and video hosting by TinyPic

Breaking News

জামাই না ছেলে !

কথায় বলে জন জামাই ভাগ্না --- কভু না হয় আপনা। তা জামাই বাবাজীবনকে শুধু মেয়ের বর না ভেবে নিজের ছেলে-ও তো ভাবা যায় না কি ? জামাই অনেক সময় সন্তানের কর্তব্য পালন করছে , এমনটাও যে দেখা যায় না তা নয়। আজকে Kolkata GlitZ হদিশ দিল এমন-ই কয়েকজন সন-ইন-ল-দের।


অক্ষয় কুমার : রাজেশ খান্না -ডিম্পল-এর বড় কন্যে টুইন্কলে-এর সঙ্গে বিয়ের পর আক্কি কিন্তু জামাই নয় ছেলের কর্তব্য পালন করেছেন। জীবনের শেষ দিনটি পর্যন্ত 'কাকা' পাশে পেয়েছিলেন অক্ষয় বেটাকে। রাজেশ-ডিম্পল-এর মধ্যে দুরত্ব ঘুচিয়ে তাঁদের এক মেরুতে নিয়ে আসেন খিলাড়ি।

সেফ আলি খান : শ্বশুর রনধীর কাপুর ও শাশুড়ি মা ববিতা দুজনের সঙ্গেই খানসাহেবের রাপো ব্যাপক। না না ঠাট্টা নয়। দুজনেই সেফের খাপের থুড়ি কাছের লোক। এককথায় পতৌদির নয়া নবাব লাজবাব। 
 অজয় দেবগণ : আপাতদৃষ্টিতে দারুন অন্তর্মুখী। কিন্তু শ্বশুরের মৃত্যুর পর শাশুড়ি মা তনুজার সুবিধা-অসুবিধার উপর সতর্ক দৃষ্টি তাঁর। এমনকি জিজু হিসেবে বলা ভালো বড় ভাইয়ের মত শালী তানিশাকে আগলে রাখেন অজয়। 

 কুমার গৌরব : শালেসাহাব সঞ্জু বাবা যখন ড্রাগের নেশায় বুঁদ হয়ে থাকতেন সেসময় তাঁকে সেই পথ থেকে ফেরাতে চেষ্টার কসুর করেন নি কুমার গৌরব। এমনকি ড্রাগের সর্বনেশে নেশা কাটিয়ে দেশে ফেরবার পর বিমানবন্দরে সঞ্জয়কে প্রথম ওয়েলকাম জানিয়েছিলেন কুমার গৌরব তথা বান্টি-ই।