Header Ads

Image and video hosting by TinyPic

Breaking News

বছর শেষের কবিতা- ঘরে অ্যান্ড বাইরে


অমিত লাবণ্য। নাম দুটো শুনলেই রবি ঠাকুরের 'শেষের কবিতা'-এর দুই মুখ্য চরিত্রের কথা মনে পরে যায়। যাঁরা বাঙালি সাহিত্যপ্রেমীদের মনে চিরতরে জায়গা করে নিয়েছে। ঠিক তেমনি এই অমিত ও লাবণ্যের রেশ বহুবছর মনে থেকে যাবে বাঙালি সিনেমাপ্রেমী দর্শকের। এই অমিত লাবণ্য হচ্ছে সদ্য মুক্তিপ্রাপ্ত মৈনাক ভৌমিক বয়েজ পরিচালিত 'ঘরে অ্যান্ড বাইরে' ছবির প্রধান দুই চরিত্র।



এই দুই চরিত্রে অভিনয় করেছেন যীশু সেনগুপ্ত কোয়েল মল্লিক। যারা ছোটবেলা থেকে পরস্পরের বন্ধু। পাড়াতুতো বন্ধু। খুনসুটি, ঝগড়াঝাটি করতে করতে কখন যে বন্ধুত্ব ভালোবাসার রূপ নিল এবং কিভাবে দুই বন্ধুর ভালোবাসা পূর্ণতা পেল তাই নিয়ে সুরিন্দর ফিল্মস প্রযোজিত 'ঘরে অ্যান্ড বাইরে' যীশু কোয়েলের কেমিস্ট্রি ছবিটির মূল ইউএসপি।  যীশুর প্রাণবন্ত অভিনয় মন ছুঁয়ে যাবে দর্শকদের। টম বয় কোয়েল- অসম্ভব সুন্দর। সঙ্গে অনুপম রায়ের মিউজিক, যা আগামী বেশ কিছুদিন ধরে গানের লিস্টে সবার ওপরেই থাকবে। আর ঝকঝকে সিনেমাটোগ্রাফি। বাকিদের অভিনয়ও যথাযথ। এনআরআই পাত্রের ভূমিকায় জয় সেনগুপ্তর অভিনয় একেবারে মানানসই।



সব মিলিয়ে একটি সুন্দর গল্পকে, সুন্দরভাবে দেখাতে পেরেছেন পরিচালক মৈনাক ভৌমিক। হয়তো এরকম গল্প আরো অনেক হয়েছে। কারণ এই গল্প আমার আপনার সকলের পরিচিত। আমাদের চারপাশে দেখলে এরকম গল্প হয়তো আমরা অনেক পাব। কিন্তু গল্পটি যেভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে, তার জন্যই আরো কয়েকবার ছবিটি হলে গিয়ে দেখা যায়। তাই রবিবার নববর্ষের দুপুরে সিনেমা হলে গিয়ে ভালো বাংলা ঘরোয়া সিনেমা দেখবার একমাত্র উপকরণ – ‘ঘরে অ্যান্ড বাইরে’

রিভিউ- সুমি মিত্র
রেটিং- ৪/৫ 

No comments